সুবচন : সরল পথের স্মরণিকা ১৪০ অক্ষরে (টুইটারে টুইট)

আপনি চাইলেই টুইটারে টুইট করতে পারবেন এই কুরআনের আয়াত, হাদিস এবং সুন্দর কিছু বাণী

  • আসমানে যা আছে এবং যমীনে যা আছে তার সবই আল্লাহর তাসবীহ করছে। তিনি বাদশাহ, অতি পবিত্র এবং মহা পরাক্রমশালী ও জ্ঞানময়। [সূরা জুমুআ-১]
  • তিনি ক্ষমাশীল, প্রেমময়, আরশের মালিক, শ্রেষ্ঠ-সম্মানিত এবং তিনি যা চান তাই করেন। [সূরা বুরুজ:১৪-১৬]
  • তাদের মিথ্যা আরোপ করায় এ কুরআনের কিছু আসে যায় না। বরং এ কুরআন উন্নত মর্যাদা সম্পন্ন, সংরক্ষিত ফলকে লিপিবদ্ধ। [সূরা বুরুজ:২১-২২]
  • আসলে তোমার রবের পাকড়াও বড় শক্ত। তিনিই প্রথমবার সৃষ্টি করেন আবার তিনিই দ্বিতীয় বার সৃষ্টি করবেন।[সূরা বুরুজ:১২-১৩]
  • আমি কি তোমাদের দোজখীদের বিষয়ে জানাব না? তারা হলো: প্রত্যেক অহংকারী, সীমালংঘনকারী, অবিনয়ী ও উদ্ধত লোক [বুখারী,মুসলিম]
  • কাজেই ছেড়ে দাও, হে নবী! এ কাফেরদেরকে সামান্য কিছুক্ষণের জন্য এদের অবস্থার ওপর ছেড়ে দাও।[সূরা তারিক:১৭]
  • এমন কোন প্রাণ নেই যার ওপর কোন হেফাজতকারী নেই [সূরা আত তারিক-৪]
  • আমি শয়তানদেরকে তাদের বন্ধু করে দিয়েছি, যারা বিশ্বাস স্থাপন করে না। [সূরা আল আ’রাফ-২৭]
  • আমি কাউকে তার সাধ্যের অতীত কষ্ট দেই না। যখন তোমরা কথা বল, তখন সুবিচার কর, যদিও সে আত্নীয়ও হয় [আল আন’আম:১৫২]
  • আমি কি তোমাদের দোজখীদের বিষয়ে জানাব না? তারা হলো: প্রত্যেক অহংকারী, সীমালংঘনকারী, অবিনয়ী ও উদ্ধত লোক [বুখারী,মুসলিম]
  • নিশ্চয় যারা তাদের পালনকর্তাকে না দেখে ভয় করে, তাদের জন্যে রয়েছে ক্ষমা ও মহাপুরস্কার। [সূরা মুলক:১২]
  • নির্লজ্জতার কাছেও যেয়ো না, প্রকাশ্য হোক কিংবা অপ্রকাশ্য [সূরা আনআম-১৫১]
  • কোন সৎকাজকে অবজ্ঞা করো না, যদিও তা তোমার ভাই এর সাথে হাসিমুখে সাক্ষাত করার কাজ হয়। [মুসলিম]
  • আল্লাহ তা’আলা তোমাদের চেহারা ও দেহের প্রতি দৃষ্টিপাত করেন না; বরং তোমাদের অন্তর ও কর্মের প্রতি লক্ষ্য আরোপ করেন। [মুসলিম]
  • লজ্জাশীলতা কল্যাণই বয়ে আনে” [বুখারী ও মুসলিম] …. মুসলিমের এক বর্ণনায় এরূপ রয়েছেঃ “লজ্জাশীলতার পুরোটাই কল্যাণময়।
  • বলুন, তিনিই তোমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন এবং দিয়েছেন কর্ণ, চক্ষু ও অন্তর। তোমরা অল্পই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কর। [সূরা আল মুলক:২৩]
  • তিনিই আল্লাহ তা’আলা, তিনি ব্যতীত কোন উপাস্য নেই; তিনি দৃশ্য ও অদৃশ্যকে জানেন তিনি পরম দয়ালু, অসীম দাতা। [সূরা হাশর-২২]
  • সৎকাজের আদেশ অসৎকাজ থেকে নিষেধ অথবা আল্লাহর স্মরণ সংবলিত কথা ছাড়া সমস্ত কথাই আদম সন্তানের জন্য ক্ষতিকর। [তিরমিযী, ইবনে মাজাহ]
  • আল্লাহ তায়ালা কোমল চিত্ত। সবকিছুতে তিনি কোমলতাকে পছন্দ করেন। [বুখারী ও মুসলিম]
  • নিস্প্রয়োজন কথা ও কাজ বর্জন মানুষের দীনদারীকে সৌন্দর্যমন্ডিত করে। [তিরমিযী]
  • রহমান-এর বান্দা তারাই, যারা পৃথিবীতে নম্রভাবে চলাফেরা করে এবং তাদের সাথে যখন মুর্খরা কথা বলতে থাকে, তখন তারা বলে, সালাম।[সূরা ফুরকানঃ৬৩]
  • প্রচার করো,যদি একটিমাত্র আয়াতও হয় {বুখারি ৩৪৬১}
  • যারা দোযখে যাবে এবং যারা জান্নাতে যাবে তারা পরস্পর সমান হতে পারেনা। যারা জান্নাতে যাবে তারাই সফলকাম। [সূরা আল হাশর-২০]
  • বিরতি দিয়ে দিয়ে পরস্পরের সাথে মিলিত হও, তাহলে তোমাদের ভেতরে সম্প্রীতি ও ভালোবাসা বাড়বে। [তাবরানী, বাযযার]
  • তোমাদের কেউই পূর্ণ ঈমানদার হতে পারবে না, যতক্ষণ না সে তার ভাইয়ের জন্য তা-ই পছন্দ না করবে যা সে নিজের জন্য পছন্দ করে [বুখারী,মুসলিম]
  • মানুষ যা চায়, তাই কি পায়? — [সূরা নাজমঃ ২৪] এবং মানুষ তাই পায়, যা সে করে [সুরা নাজমঃ৩৯]
  • তারা কি জানেনি যে,আল্লাহ যার জন্যে ইচ্ছা রিযিক বৃদ্ধি করেন এবং পরিমিত দেন।নিশ্চয় এতে বিশ্বাসী সম্প্রদায়ের জন্যে নিদর্শনাবলী রয়েছে [যুমার-৫২]
  • তোমরা তোমাদের পালনকর্তার অভিমূখী হও এবং তাঁর আজ্ঞাবহ হও তোমাদের কাছে আযাব আসার পূর্বে।এরপর তোমরা সাহায্যপ্রাপ্ত হবে না [সূরা যুমার-৫৪]
  • নভোমন্ডলে ও ভূমন্ডলে যা কিছু আছে, সবই আল্লাহর পবিত্রতা ঘোষণা করে। তিনি পরাক্রান্ত প্রজ্ঞাবান। [সূরা সফ-১]
  • মুমিনগণ! তোমরা যা কর না, তা কেন বল? তোমরা যা কর না, তা বলা আল্লাহর কাছে খুবই অসন্তোষজনক। [সূরা সফ:২-৩]
  • তোমরা তোমাদের কথা গোপনে বল অথবা প্রকাশ্যে বল, তিনি তো অন্তরের বিষয়াদি সম্পর্কে সম্যক অবগত। [সূরা মুলক -১৩]
  • বলুন, তোমরা ভেবে দেখেছ কি, যদি তোমাদের পানি ভূগর্ভের গভীরে চলে যায়, তবে কে তোমাদেরকে সরবরাহ করবে পানির স্রোতধারা?[সূরা মুলক-৩০]
  • নিশ্চয় সাফল্য লাভ করবে সে, যে শুদ্ধ হয় এবং তার পালনকর্তার নাম স্মরণ করে, অতঃপর নামায আদায় করে। [সূরা আ’লা ১৪-১৫]
  • বস্তুতঃ তোমরা পার্থিব জীবনকে অগ্রাধিকার দাও, অথচ পরকালের জীবন উৎকৃষ্ট ও স্থায়ী। [সূরা আ’লা ১৬-১৭]
  • অতএব, আপনি উপদেশ দিন, আপনি তো কেবল একজন উপদেশদাতা, আপনি তাদের শাসক নন [সূরা গাশিয়াহ ২১-২২]
  • নিশ্চয় তাদের প্রত্যাবর্তন আমারই নিকট, অতঃপর তাদের হিসাব-নিকাশ আমারই দায়িত্ব। [গাশিয়াহ ২৫-২৬]
  • আমি সৃষ্টি করেছি মানুষকে সুন্দরতর অবয়বে। অতঃপর তাকে ফিরিয়ে দিয়েছি নীচ থেকে নীচে। [আত-ত্বীন ৪-৫]
  • অতঃপর কেন তুমি অবিশ্বাস করছ কেয়ামতকে? আল্লাহ কি বিচারকদের মধ্যে শ্রেষ্টতম বিচারক নন? [আত ত্বীন ৭-৮]
  • কিন্তু যারা বিশ্বাস স্থাপন করেছে ও সৎকর্ম করেছে, তাদের জন্যে রয়েছে অশেষ পুরস্কার। অতঃপর কেন তুমি অবিশ্বাস করছ কেয়ামতকে? [আত-ত্বীন: ৬-৭]
  • পাঠ করুন আপনার পালনকর্তার নামে যিনি সৃষ্টি করেছেন সৃষ্টি করেছেন মানুষকে জমাট রক্ত থেকে। [আল-আলাক ১-২]
  • অতঃপর কেউ অণু পরিমাণ সৎকর্ম করলে তা দেখতে পাবে এবং কেউ অণু পরিমাণ অসৎকর্ম করলে তাও দেখতে পাবে। [সূরা যিলযাল ৭-৮]
  • তোমরা আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের অভিপ্রায়ের বাইরে অন্য কিছুই ইচ্ছা করতে পার না। [আত-তাকউয়ির ২৯]
  • অতঃপর আপনি জানেন, বিচার দিবস কি? যেদিন কেউ কারও কোন উপকার করতে পারবে না এবং সেদিন সব কর্তৃত্ব হবে আল্লাহর। [আল ইনফিতার ১৮-১৯]
  • নিশ্চয় সৎলোকগণ থাকবে পরম আরামে, সিংহাসনে বসে অবলোকন করবে। আপনি তাদের মুখমন্ডলে স্বাচ্ছন্দ্যের সজীবতা দেখতে পাবেন। [আল মুতাফফিফীন ২২-২৪]
  • কিন্তু যারা বিশ্বাস স্থাপন করে ও সৎকর্ম করে, তাদের জন্য রয়েছে অফুরন্ত পুরস্কার।” [আল ইনশিক্কাক ২৫]
  • যারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে তাদের জন্যে আছে জান্নাত, যার তলদেশে প্রবাহিত হয় নির্ঝরিণীসমূহ। এটাই মহাসাফল্য। [আল-বুরুজ-১১]
  • মুমিনগণ! তোমরা যা কর না, তা কেন বল? তোমরা যা কর না, তা বলা আল্লাহর কাছে খুবই অসন্তোষজনক।” [আস-সফ ২-৩]
  • এ সেই কিতাব যাতে কোনই সন্দেহ নেই। পথ প্রদর্শনকারী পরহেযগারদের জন্য” [সূরা আল বাকারাহ ২]
  • আল্লাহ তা’আলা তোমাদের চেহারা ও দেহের প্রতি দৃষ্টিপাত করেন না; বরং তোমাদের অন্তর ও কর্মের প্রতি লক্ষ্য আরোপ করেন।” [মুসলিম]
  • তোমরা সহজ নীতি ও আচরণ অবলম্বন করো, কঠোর নীতি অবলম্বন করো না। সুসংবাদ শুনাতে থাকো এবং পরস্পর ঘৃণা ও বিদ্বেষ ছড়িও না। [বুখারী,মুসলিম]
  • পুণ্য ও সততা সচ্চরিত্রেরই অপর নাম। গুনাহ হলো সেই জিনিস যা তোমার অন্তরে সন্দেহ সৃষ্টি করে এবং লোকে জেনে ফেলুক তা তুমি অপছন্দ করো। [মুসলিম]
  • রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের চামড়ার একটা বিছানা ছিলো, এর ভেতরে ভরা ছিলো খেজুরের ছাল। [বুখারী]
  • রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জামার আস্তিন ছিলো কব্জি পর্যন্ত। [আবু দাউদ, তিরমিযি]
  • যারা বিশ্বাস স্থাপন করে এবং তাদের অন্তর আল্লাহর যিকির দ্বারা শান্তিলাভ করে;জেনে রাখ,আল্লাহর যিকির দ্বারাই অন্তরসমূহ শান্তি পায় [আর-রাদ ২৮]
  • তিনিই সেই আল্লাহ, যিনি তোমাদের আকৃতি গঠন করেন মায়ের গর্ভে, যেমন তিনি চেয়েছেন। তিনি ছাড়া আর কোন উপাস্য নেই। [সূরা আল ইমরান -৬]
  • হে আমাদের পালনকর্তা! এবং আমাদের উপর এমন দায়িত্ব অর্পণ করো না, যেমন আমাদের পূর্ববর্তীদের উপর অর্পণ করেছ [সূরা বাকারা ২৮৬]
  • আল্লাহ কাউকে তার সাধ্যাতীত কোন কাজের ভার দেন না, সে তাই পায় যা সে উপার্জন করে এবং তাই তার উপর বর্তায় যা সে করে।[সূরা বাকারা ২৮৬]
  • হে ঈমানদারগণ, তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং সুদের যে সমস্ত বকেয়া আছে, তা পরিত্যাগ কর, যদি তোমরা ঈমানদার হয়ে থাক। [সূরা বাকারাহ ২৭৮]
  • যে মাল তোমরা ব্যয় কর, তা নিজ উপাকারার্থেই কর। আল্লাহর সন্তুষ্টি ছাড়া অন্য কোন উদ্দেশ্যে ব্যয় করো না।[সূরা বাকারাহ ২৭২]
  • উপদেশ তারাই গ্রহণ করে, যারা জ্ঞানবান। [সূরা বাকারাহ ২৬৯]
  • নম্র কথা বলে দেয়া এবং ক্ষমা প্রদর্শন করা ঐ দান খয়রাত অপেক্ষা উত্তম,যার পরে কষ্ট দেয়া হয়।আল্লাহ তা’আলা সম্পদশালী,সহিঞ্চু।[সুরা বাকারা-২৬৩]
  • হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদের মনে ধৈর্য্য সৃষ্টি করে দাও এবং আমাদেরকে দৃঢ়পদ রাখ [সূরা বাকারা ২৫০]
  • নিশ্চয় আমরা সবাই আল্লাহর জন্য এবং আমরা সবাই তাঁরই সান্নিধ্যে ফিরে যাবো। [সূরা বাকারা ১৫৬]
  • আর যারা আল্লাহর রাস্তায় নিহত হয়, তাদের মৃত বলো না। বরং তারা জীবিত, কিন্তু তোমরা তা বুঝ না। [সূরা বাকারা ১৫৪]
  • হে মুমিন গন! তোমরা ধৈর্য্য ও নামাযের মাধ্যমে সাহায্য প্রার্থনা কর। নিশ্চিতই আল্লাহ ধৈর্য্যশীলদের সাথে রয়েছেন। [সূরা বাকারা ১৫৩]
  • সুতরাং তোমরা আমাকে স্মরণ কর, আমিও তোমাদের স্মরণ রাখবো এবং আমার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কর; অকৃতজ্ঞ হয়ো না। [সূরা বাকারা ১৫২]
  • তোমাদের পালনকর্তা বলেন, তোমরা আমাকে ডাক, আমি সাড়া দেব। [সূরা গাফির ৬০]
  • যদি আল্লাহর নেয়ামত গণনা কর, তবে গুণে শেষ করতে পারবে না। নিশ্চয় মানুষ অত্যন্ত অন্যায়কারী, অকৃতজ্ঞ। [সূরা ইবরাহিম-৩৪]
  • হে আমাদের পালনকর্তা, আমাকে, আমার পিতা-মাতাকে এবং সব মুমিনকে ক্ষমা করুন, যেদিন হিসাব কায়েম হবে। [সূরা ইবরাহিম-৪১]
  • সমগ্র পৃথিবীটাই সম্পদে পরিপূর্ণ। এর মধ্যে কল্যাণকর ও উত্তম সম্পদ হল চরিত্রবান নেককার স্ত্রী। [মুসলিম]
  • তোমাদের প্রতি আল্লাহর অনুগ্রহ ও দয়া না থাকলে এবং আল্লাহ তওবা কবুল কারী, প্রজ্ঞাময় না হলে কত কিছুই যে হয়ে যেত [আন-নূর-১০]
  • যদি তোমাদের প্রতি আল্লাহর অনুগ্রহ ও দয়া না থাকত এবং আল্লাহ দয়ালু, মেহেরবান না হতেন, তবে কত কিছুই হয়ে যেত [আন নূর-২০]
  • যারা পছন্দ করে যে, ঈমানদারদের মধ্যে ব্যভিচার প্রসার লাভ করুক, তাদের জন্যে ইহাকাল ও পরকালে যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি রয়েছে [আন নূর:১৯]
  • যারা সতী-সাধ্বী,নিরীহ ঈমানদার নারীদের প্রতি অপবাদ আরোপ করে,তারা ইহকালে ও পরকালে ধিকৃত এবং তাদের জন্যে রয়েছে গুরুতর শাস্তি।[আন-নূর:২৩]
  • মুমিনদেরকে বলুন, তারা যেন তাদের দৃষ্টি নত রাখে এবং তাদের যৌনাঙ্গর হেফাযত করে। এতে তাদের জন্য খুব পবিত্রতা আছে [সূরা আন নূর :৩০]
  • মুমিনগণ,কেউ যেন অপর কাউকে উপহাস না করে।কেননা,সে উপহাসকারী অপেক্ষা উত্তম হতে পারে এবং কোন নারী অপর নারীকেও যেন উপহাস না করে[হুজুরাত-১১]
  • তোমরা একে অপরের প্রতি দোষারোপ করো না এবং একে অপরকে মন্দ নামে ডেকো না। [সূরা হুজুরাত-১১]
  • মুমিনগণ, কেউ যেন অপর কাউকে উপহাস না করে। কেননা, সে উপহাসকারী অপেক্ষা উত্তম হতে পারে [সূরা হুজুরাত -১১]
  • আমি মানুষ সৃষ্টি করেছি এবং তার মন নিভৃতে যে কুচিন্তা করে, সে সম্বন্ধেও আমি অবগত আছি। [সূরা ক্বাফ-১৬]
  • আমি জীবন দান করি, মৃত্যু ঘটাই এবং আমারই দিকে সকলের প্রত্যাবর্তন। [সূরা ক্বাফ-৪৩]
  • তোমাদের পালনকর্তা বলেন, তোমরা আমাকে ডাক, আমি সাড়া দেব।[সূরা গাফির-৬০]
  • নিশ্চয় আল্লাহ মানুষের প্রতি অনুগ্রহশীল, কিন্তু অধিকাংশ মানুষ কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে না।” [সূরা গাফির – ৬১]
  • তিনিই জীবিত করেন এবং মৃত্যু দেন। যখন তিনি কোন কাজের আদেশ করেন,তখন একথাই বলেন,হয়ে যা’-তা হয়ে যায়। [সূরা গাফির-৬৮]
  • যে আল্লাহর দিকে দাওয়াত দেয়, সৎকর্ম করে এবং বলে,আমি একজন আজ্ঞাবহ, তার কথা অপেক্ষা উত্তম কথা আর কার? [সূরা ফুসসিলাত-৩৩]
  • আল্লাহ ও তাঁর ফেরেশতাগণ নবীর প্রতি দরূদ পাঠান। হে ঈমানদারগণ! তোমরাও তাঁর প্রতি দরূদ ও সালাম পাঠাও। [সূরা আল আহযাব-৫৬]
  • আল্লাহর প্রতি নির্ভর করো। কর্ম সম্পাদনের জন্য আল্লাহই যথেষ্ট। [আল আহযাব-৩]
  • হে ঈমানদারগণ! আল্লাহকে বেশী করে স্মরণ করো এবং সকাল সাঁঝে তাঁর মহিমা ঘোষণা করতে থাকো। [আল আহযাব:৪১-৪২]
  • হে ঈমানদারগণ!আল্লাহকে ভয় করো এবং সঠিক কথা বল। [আল আহযাব-৭০]
  • হে আমাদের পরওয়ারদেগার আমাদের জন্য ধৈর্য্যের দ্বার খুলে দাও এবং আমাদেরকে মুসলমান হিসাবে মৃত্যু দান কর। [আল আ’রাফ-১২৬]
  • যারা এতীমদের অর্থ-সম্পদ অন্যায়ভাবে খায়, তারা নিজেদের পেটে আগুনই ভর্তি করেছে এবং সত্ত্বরই তারা অগ্নিতে প্রবেশ করবে। [সূরা নিসা-১০]
  • আল্লাহ তোমাদের বোঝা হালকা করতে চান। মানুষ দুর্বল সৃজিত হয়েছে। [সূরা নিসা – ২৮]
  • আমি যাকে ইচ্ছা, মর্যাদায় উন্নীত করি এবং প্রত্যেক জ্ঞানীর উপরে আছে অধিকতর এক জ্ঞানীজন।” [সূরা ইউসুফ – ৭৬]
  • আর পার্থিব জীবন ধোঁকা ছাড়া অন্য কোন সম্পদ নয়”। [আল ইমরান ১৮৫]
  • তোমরা তাদের মত হয়ো না যারা আল্লাহকে ভুলে যাওয়ার কারণে আল্লাহ তাদের নিজেদেরকেই ভুলিয়ে দিয়েছেন। তারাই ফাসেক। [সূরা হাশর ১৯]
  • হে আমার রব! আমাকে নামায প্রতিষ্ঠাকারী করো এবং আমার বংশধরদের থেকেও। পরওয়ারদিগার! আমার দোয়া কবুল করো।[সূরা ইবরাহিম৪০]
  • আসলে আমার রব নিশ্চয়ই দোয়া শোনেন। [সূরা ইবরাহিম ৩৯]
  • পিতামাতার সাথে সদ্ব্যবহার আয়ু বাড়ায়, মিথ্যা বলা জীবিকা কমায়, এবং দোয়ায় ভাগ্য ফিরায়। [আল হাদিস, ইসবাহানী]
  • তিনি তার বান্দাদের মধ্যে থেকে যাকে চান অনুগ্রহ করেন এবং তিনি ক্ষমাশীল ও দয়ালু। [সূরা ইউনুস ১০৭]
  • আর যদি তিনি তোমার কোন মঙ্গল চান তাহলে তার অনুগ্রহ রদ করারও কেউ নেই [সূরা ইউনুস ১০৭]
  • যদি আল্লাহ‌ তোমাকে কোন বিপদে ফেলেন তাহলে তিনি ছাড়া আর কেউ নেই যে, এ বিপদ দুর করতে পারে। [সূরা ইউনুস ১০৭]
  • আল্লাহর সান্নিধ্যেই তোমাদেরকে ফিরে যেতে হবে। আর তিনি সব কিছুর উপর ক্ষমতাবান।”[সূরা হুদ ৪]
  • হে আমার পালনকর্তা, ক্ষমা করুন ও রহম করুন। রহমকারীদের মধ্যে আপনি শ্রেষ্ট রহমকারী। [আল মু’মিনূন -১১৮]
  • হে আমাদের প্রতিপালক ! তাঁদের (পিতা-মাতা) প্রতি দয়া কর যেভাবে শৈশব তাঁরা আমাকে প্রতিপালন করেছেন। [আল ইসরা ২৪]
  • আপনি আপনার মহান পালনকর্তার নামের পবিত্রতা বর্ণনা করুন যিনি সৃষ্টি করেছেন ও সুবিন্যস্ত করেছেন। [আল আ’লা ১-২]
  • নিশ্চয় আল্লাহ তাদের সঙ্গে আছেন, যারা পরহেযগার এবং যারা সৎকর্ম করে।” [আন নাহল ১২৮]
  • হে পরওয়ারদেগার! আমাদেরকে দুনিয়াতেও কল্যাণ দান কর এবং আখিরাতেও কল্যাণ দান কর এবং আমাদেরকে দোযখের আযাব থেকে রক্ষা কর।” [বাকারা ২০১]
  • আল্লাহ তোমাদের জন্য সহজ করতে চান; তোমাদের জন্য জটিলতা কামনা করেন না [আল বাকারা ১৮৫]
  • বস্তুতঃ আমি রয়েছি সন্নিকটে। যারা প্রার্থনা করে, তাদের প্রার্থনা কবুল করে নেই, যখন আমার কাছে প্রার্থনা করে। [আল বাকারা ১৮৬]
  • নিশ্চয়ই আল্লাহ তওবাকারী এবং অপবিত্রতা থেকে যারা বেঁচে থাকে তাদেরকে পছন্দ করেন। [আল বাকারা ২২২]
  • আর আল্লাহর চেয়ে প্রতিশ্রুতি রক্ষায় কে অধিক? [আত তাওবাহ ১১১]
  • আর আল্লাহ পবিত্র লোকদের ভালবাসেন। [আত তাওবাহ ১০৮]
  • হে ঈমানদারগণ, আল্লাহকে ভয় কর এবং সত্যবাদীদের সাথে থাক [আত তাওবাহ ১১৯]
  • আল্লাহই আমার জন্য যথেষ্ট, তিনি ব্যতীত আর কারো বন্দেগী নেই। আমি তাঁরই ভরসা করি এবং তিনিই মহান আরশের অধিপতি। [আত তাওবাহ ১২৯]
  • যদি কৃতজ্ঞতা স্বীকার কর, তবে তোমাদেরকে আরও দেব এবং যদি অকৃতজ্ঞ হও তবে নিশ্চয়ই আমার শাস্তি হবে কঠোর। [সূরা ইবরাহিম ৭]
  • আল্লাহ মানুষের জন্যে দৃষ্টান্ত বর্ণণা করেন- যাতে তারা চিন্তা-ভাবনা করে। [সূরা ইবরাহিম ২৫]
  • অতঃপর যখন কোন কাজের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে ফেলেন, তখন আল্লাহ তা’আলার উপর ভরসা করুন আল্লাহ তাওয়াক্কুল কারীদের ভালবাসেন। [আলে ইমরান:১৫৯]

http://goo.gl/dVY9D

নিয়াতের ব্যাপারে শিখুন কেননা এটা কাজের চাইতেও বেশি গুরুত্বপূর্ণ।~ইয়াহইয়া ইবনে আবি কাসির

ফাতিমা (রাদিয়াল্লাহু আনহা) বলেনঃ সেই নারীগণ সর্বোত্তম যারা পুরুষদের দেখে না এবং পুরুষরা যাদের দেখতে পায় না।

যদি হৃদয়কে আঘাত পাওয়া থেকে রক্ষা করতে চান, তাহলে যা হারিয়ে যায় তার সাথে বন্ধন তৈরি করা থেকে বিরত থাকুন।~ইয়াসমিন মোগাহেদ

কোন কিছুতে বেশি অভ্যস্ত হয়ে পড়বেন না, আগামীকাল সেটা হয়ত বদলে যাবে।~ইয়াসমিন মোগাহেদ

কম বয়সে কোন কিছু শেখার প্রভাব অনেকটা পাথরের উপরে খোদাই করে লেখার মতন।~আল-হাসান আল-বাসরি

আল্লাহর আনুগত্য করা ছাড়া অন্য কোন মাধ্যমে আল্লাহর সাথে একজন ব্যক্তির কোন সম্পর্ক থাকে না।~হযরত উমার (রা)

কোন লোক ​যখন পাপ করে, অতঃপর সেগুলোকে তুচ্ছ মনে করে এবং অবজ্ঞা করে, সে পাপগুলো বড় পাপের অন্তর্ভুক্ত।~ইমাম আল-আউজা’ঈ

আপনার ভালো কাজগুলোকে (মানুষের কাছ থেকে) সেভাবেই লুকিয়ে রাখুন যেভাবে আপনার খারাপ কাজগুলোকে লুকিয়ে রাখেন।~সালামাহ ইবনে দিনার

তাদের সাথে বন্ধুত্ব করো যাদের দ্বীনদারী তোমার চাইতে বেশি এবং দুনিয়াদারী তোমার চাইতে কম।~উসমান ইবনে হাকিম

উসমানের (রাদিয়াল্লাহু আনহু) মুক্ত করে দেয়া দাস হানী বলেনঃ উসমান যখন কোন কবরের পাশে দাঁড়াতেন, তিনি এতটা কাঁদতেন যে তার দাড়ি ভিজে যেত।

কাউকে কোন কিছু দেয়ার ইচ্ছা না থাকলেও মুখে ইনশা-আল্লাহ বলাটা হলো কপটতা (মুনাফিকি)।~আবদ আল-রাহমান আল-আউজা’ঈ

যদি চান নামায আপনার জন্য কল্যাণ বয়ে নিয়ে আসুক তাহলে নিজেকে বলুন,আমি হয়ত আরেকবার নামায আদায়ের সুযোগ না-ও পেতে পারি।~বাকর আল-মুজনি

​ইসলাম হলো আদর্শের প্রতি অঙ্গীকারবদ্ধ থাকা, মানুষের প্রতি নয়।~মুহাম্মাদ আল গাজালি

মানুষের এমন সঙ্গ থেকে দূরে থাকুন যা আপনাকে জ্ঞানলাভের মাধ্যমে উপকৃত করে না।~মু’আজ বিন জাবাল(রাদিয়াল্লাহু আনহু)

কেউ যখন আমাকে খেপিয়ে তোলে, আমি মনে করি আল্লাহর পক্ষ থেকে তা একটি উপহার। তিনি আমাকে নম্র হওয়া শেখাচ্ছেন।~ইমাম ইবনে তাইমিয়া

আমাদের এমন প্রজন্ম প্রয়োজন যারা ইসলামকে আঁকড়ে ধরে রাখবে, ইসলাম তাদেরকে ধরে রাখবে এমন নয়। ~হাসান আল-বান্না

যদি সম্মানিত হতে চান, অন্যদেরকে সম্মান করতে শিখুন।~মুফতি ইসমাইল মেঙ্ক

যে কাজটি আল্লাহর জন্য (আন্তরিকতার সাথে) করা হয় সেটিই রয়ে যায়। ~ইমাম মালিক

কারো অধঃপতনে আনন্দ প্রকাশ করো না, কেননা ভবিষ্যত তোমার জন্য কী প্রস্তুত করে রেখেছে সে সম্পর্কে তোমার কোন জ্ঞানই নেই।~হযরত আলী (রা)

“সেই বৃক্ষের মতন হও, যখন লোকে তাকে পাথর ছুঁড়ে দেয়, সে তার বিনিময়ে দেয় সুস্বাদু ফল।– ইমাম হাসান আল-বান্না (রাহিমাহুল্লাহ)

তাহাজ্জুদের সময়ে করা দু’আ হলো এমন একটি তীরের মতন যা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় না। – ইমাম শাফিঈ (রাহিমাহুল্লাহ)

আল্লাহর যিকরে, সলাতে এবং কুরআন তিলাওয়াতে যে ব্যক্তি সুখ খুঁজে পায় না, সে অন্য কোথাও তা খুঁজে পাবে না।~হাসান আল-বাসরী

যতদিন আপনার হৃদয় পরিশুদ্ধ থাকবে, ততদিন আপনি সত্য কথা বলবেন।~উমার ইবনুল খাত্তাব

নিয়্যাহ-এর প্রকৃত স্থান হলো অন্তরে, জিহবায় নয়।~ইমাম ইবনে তাইমিয়্যা

যখন নিজের পাপ দিয়ে রাস্তা বন্ধ করে রেখেছ তখন দু’আর উত্তর আসতে কেন দেরি হচ্ছে এমন চিন্তা করো না।~ইয়াহইয়া ইবনে মু’আজ

ফুলের মতন হও, যে তাকে দলিত করে তাকেও সে সুগন্ধ বিলায়।~আলী ইবনে আবু তালিব

আল্লাহর ক্ষমাশীলতার ব্যাপারে নিরাশ হওয়া কোনো পাপ করে ফেলার চাইতেও বেশি খারাপ।~শাইখ সালিহ আল-ফাওজান

লোকের প্রশংসায় আনন্দিত হতে এবং লোকের নিন্দায় দুঃখিত হতে আপনার অন্তরকে প্রশ্রয় দিবেন না।~ইমাম আল-গাজ্জালী

পাপকাজের অনেক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে, তার মধ্যে একটি হলো তা আপনার কাছ থেকে জ্ঞান ছিনিয়ে নেবে।~ইমাম ইবনুল কায়্যিম

good articles :


দৈনিক ৭টি ফলদায়ক (প্রোডাক্টিভ) অভ্যাস http://ow.ly/qV3X0

নারীর ক্ষমতায়ন : ইয়াসমিন মোগাহেদ http://ow.ly/qV44f

কী অর্থ আমাদের জীবনের? http://ow.ly/qV4dI

খাদিজা রাদিয়াল্লাহু আনহার সাথে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের বিয়ে http://ow.ly/qV4gH

সম্পর্ক কেন ভেঙে যায়? : ইয়াসমিন মোজাহেদ http://ow.ly/qV4lU

প্রেম-বিয়ে সংস্কৃতি এবং অসুস্থ দুষ্টচক্রগুলো এমন কেন? http://ow.ly/qV4oX

কুর’আন মুখস্থ করার কিছু কার্যকরী কৌশল http://ow.ly/qV4ri

কার কাছ থেকে দ্বীন শিখছেন সে ব্যাপারে সতর্ক হন : ইয়াওয়ার বেইগ http://ow.ly/qV4tw

ফজরের সলাতের জন্য জেগে উঠার কিছু কার্যকরী কৌশল http://ow.ly/qV4x0

কার্টুন থেকে শিশুরা কী শিখছে http://ow.ly/qV4Au

যেই সমাজে বিয়ে কঠিন হয়, সেই সমাজে ব্যভিচার সস্তা হয়ে যায় http://ow.ly/qV4Dj

পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ বাবা http://ow.ly/qV4Hx

জীবনের স্বপ্ন http://ow.ly/qV4K3

প্রেম করিব তোমার সনে http://ow.ly/qV4N6

কৃতজ্ঞতা Starts From Here… http://ow.ly/qV4PI

বাঁশিওয়ালা http://ow.ly/qV4Zi

স্বামী কি স্ত্রী’র পাশে বন্ধু হতে পারে? http://ow.ly/qV571

ফেসবুকে তরুণ প্রজন্মের মাঝে নির্লজ্জতার প্রসার http://ow.ly/qV5bd

আলো হাতে চলিয়াছে.. http://ow.ly/qV5gs

স্কিল ডেভেলপমেন্ট সিরিজ: টাইম ম্যানেজমেন্ট http://ow.ly/qV5tt

চাহিবামাত্র ‘বাহককে’ দিতে বাধ্য থাকবেন না http://ow.ly/qV5Q0

বিয়ে করতে কি কোন প্রস্তুতির দরকার হয়? http://ow.ly/qV5T0

বিয়ে কি এমনই হওয়া উচিত? http://ow.ly/qV5VT

বিয়ের অপর নাম প্রশান্তি, উচ্ছ্বাস আর দয়া http://ow.ly/wJaPj

গল্পঃ বাতিঘর :: রেহনুমা বিনত আনিস http://ow.ly/qV5ZY

ভালোবাসব বাসব রে বন্ধু :: স্বপ্নচারী http://ow.ly/qV62S

তোমার জন্য লেখা : শাহ মোহাম্মদ ফাহিম http://ow.ly/qVj0V

রাগকে সংযত করা :: নুমান আলী খান http://ow.ly/qVj73

অনিবার্য সেই সময়ের প্রতীক্ষায় :: স্বপ্নচারী http://ow.ly/qVjC9

মুবারাকা আইনামা কুনত্ http://ow.ly/qVk4B

আমাদের লেখালেখি, সাহিত্য এবং তার শেষ নিয়ে কিছু কথা http://ow.ly/qVkcH

বিয়ে : একটি উত্তম বন্ধুত্ব http://ow.ly/qVksq

এ্যাডাম টিজিং :: মনপবন http://ow.ly/qVmPT

সখী ভালোবাসা কারে কয় http://ow.ly/wJbfO

ভালোবাসা ভালোবাসি http://ow.ly/qVncW

গান-বাজনা কি এতই খারাপ http://ow.ly/qVnhC

প্যাকেট না প্রোডাক্ট http://ow.ly/qVnou

তাই স্বপ্ন দেখবো বলে আমি দু’চোখ পেতেছি http://ow.ly/qVnHZ

কোথায় পাব তারে : শরীফ আবু হায়াত http://ow.ly/qVnQo

জীবনের সহজ পাঠ http://ow.ly/qVnYE

বাবা হওয়া :: নুমান আলী খান http://ow.ly/qVo33

কেমন আছ তুমি :: নুমান আলী খান http://ow.ly/qVo9N

বিনোদন আমার ধর্ম http://ow.ly/wJaZs

অপেক্ষা [অণুগল্প] :: স্বপ্নচারী http://ow.ly/wJb2A

কতিপয় হলকায়ে জিকির আর এফএম প্রজন্মের ভালোবাসার গল্প http://ow.ly/wJb6T

দাড়ি কি রাখতেই হবে? :: শরীফ আবু হায়াত http://ow.ly/wJblI

বিনোদন মানুষকে কী ভুলিয়ে রাখে http://ow.ly/wJbvE

এক যুবক রাসূলুল্লাহর (সা) কাছে এসে ব্যভিচারের অনুমতি চাইলো http://ow.ly/wJbxV

দাওয়াহ প্রদানের আন্তরিকতা কেমন হওয়া উচিৎ? http://ow.ly/wJbyT

কী নিয়ে এসেছে ইসলাম? http://ow.ly/wJbCK

ভাই আমার… http://ow.ly/wJbDX

জীবনে ভালো থাকার জন্য যা করতে হবে http://ow.ly/y4eps

Posts on Ramadan:

রামাদানের প্রস্তুতির জন্য ৮ টি সহজ টিপ্‌স http://wp.me/p1dqyX-vN

রামাদানকে সফলভাবে কাজে লাগানোর সেরা ১০টি উপায় : http://ow.ly/yj1Pt

উপবাসী কথা : শরীফ আবু হায়াত http://ow.ly/yj1ST

কাটুক প্রহর অন্বেষণে http://ow.ly/yj1RN

আহলান সাহলান http://ow.ly/yj1Uu

রোজার মাসে নিজেকে নিয়ে চিন্তাভাবনা http://ow.ly/yj1Va

রামাদান মাসে লক্ষণীয় কিছু বিষয় http://wp.me/p1dqyX-wa

রামাদান আসছে তাই আমাদের কী করা উচিত? http://wp.me/p1dqyX-w5

রামাদানুল মুবারাক http://wp.me/p1dqyX-vV

======================
​Hadith and Quran:

“দু’টি নিয়ামাত (আল্লাহর দান) যার ব্যাপারে বহু লোক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে : স্বাস্থ্য ও অবসর সময়।” [বুখারী]

“যে ব্যক্তি আল্লাহ ও আখিরাতের প্রতি ঈমান রাখে সে যেন ভালো কথা বলে অন্যথায় চুপ থাকে।” [বুখারী,মুসলিম]

“মু’মিন ব্যক্তি কখনো ঠাট্টা-বিদ্রুপকারী, অভিশাপকারী, অশ্লীলভাষী ও অসদচারী হতে পারে না।” [তিরমিযি]

“তোমার ভাইয়ের বিপদে আনন্দিত হয়ো না। কেননা এতে আল্লাহ তার প্রতি অনুগ্রহ করবেন এবং তোমাকে ঐ বিপদে নিমজ্জিত করবেন।” [তিরমিযি]

“আল্লাহ তা’আলা তোমাদের চেহারা ও দেহের প্রতি দৃষ্টিপাত করেন না; বরং তোমাদের অন্তর ও কর্মের প্রতি লক্ষ্য আরোপ করেন।” [মুসলিম]

পুণ্য ও সততা সচ্চরিত্রেরই অপর নাম। গুনাহ হলো সেই জিনিস যা তোমার অন্তরে সন্দেহ সৃষ্টি করে এবং লোকে জেনে ফেলুক তা তুমি অপছন্দ করো। [মুসলিম]

“কোন ব্যক্তির মিথ্যাবাদী হওয়ার জন্য এতটুকুই যথেষ্ট যে, সে যা শুনে তাই বলে বেড়ায়।” [মুসলিম]

“লজ্জাশীলতা কল্যাণই বয়ে আনে” [বুখারী ও মুসলিম]
মুসলিমের এক বর্ণনায় এরূপ রয়েছেঃ “লজ্জাশীলতার পুরোটাই কল্যাণময়।”

“সমগ্র পৃথিবীটাই সম্পদে পরিপূর্ণ। এর মধ্যে কল্যাণকর ও উত্তম সম্পদ হল চরিত্রবান নেককার স্ত্রী।” [মুসলিম]

“কোন ব্যক্তির খারাপ হওয়ার জন্য এটাই যথেষ্ট যে, সে তার মুসলিম ভাইকে অবজ্ঞা করে।” [মুসলিম]

“তোমরা আল কুরআন পড়। কারণ কিয়ামাতের দিন আল কুরআন তার পাঠকারীর জন্য শাফা’আতকারী হিসেবে আবির্ভূত হবে।” [মুসলিম]

“যারা আমার জন্য চেষ্টা-সাধনা করে, তাদেরকে আমি আমার পথ দেখাবো। আর আল্লাহ নিশ্চয়ই সৎকর্মশীল লোকদের সাথে রয়েছেন।” [আল আনকাবূত ৬৯]

“তোমরা (দুনিয়ার) স্বাদ-আহলাদ নিঃশেষকারী মৃত্যুকে বেশি বেশি স্মরণ করো।” [তিরমিযী]

“হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট হিদায়াত, তাকওয়া, পবিত্রতা ও স্বনির্ভরতা কামনা করছি।” [মুসলিম]

“তুমি তোমার রবের নাম স্মরণ করতে থাক এবং সবার সম্পর্ক ছিন্ন করে একমাত্র তারই দিকে মনোনিবেশ কর।” [আল মুযযাম্মিল ৮]

“হে বিশ্বাসীগণ! তোমরা মহান আল্লাহকে ভয় করো, যেমন তাঁকে ভয় করা উচিত।” [আলে- ইমরান:১০২]

হে আমার পালনকর্তা, আমাকে প্রজ্ঞা দান কর এবং আমাকে সৎকর্মশীলদের অন্তর্ভুক্ত কর। [২৬:৮৩]

“তোমরা নিজেদের জন্য যা কিছু ভালো আমল অগ্রিম পাঠাবে, তা আল্লাহর কাছে উত্তম ও বিরাট বিনিময়রূপে পাবে।” [আল মুযযাম্মিল ২০]

আমি কোরআনে এমন বিষয় নাযিল করি যা রোগের সুচিকিৎসা এবং মুমিনের জন্য রহমত। গোনাহগারদের তো এতে শুধু ক্ষতিই বৃদ্ধি পায়। [১৭:৮২]

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s